Loading...
You are here:  Home  >  পুরুষ নির্যাতন প্রতিরোধ  >  Current Article

মিথ্যা নারী নির্যাতন মামলার ঘানি টানে নির্যাতিত পুরুষ !!

By   /  07/05/2017  /  2 Comments

    Print       Email

স্বামী হিসেবে কি আমার অধিকার নাই, আমার স্ত্রী কোথায় যায়, কি করে, কার সাথে ফোনে লম্বা কথা বলে তা জানতে? একজন মেয়ে বাইরে অবশ্যই যাবে তবে যখন কোন ভদ্র ঘরের স্ত্রী রাত দশটায় ফিরবে তখন বিষয়টা অস্বাভাবিক! এতরাত পর্যন্ত কোথায় ছিলে জানতে চাওয়া কি ভাই অন্যায়? অথবা ঘন্টার পর ঘন্টা এতো কার সাথে ফোনে বল?

যে সন্তানকে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন মায়ের কাছে থাকা, সে সন্তানকে যদি বৃদ্ধ দাদি ও কাজের বুয়া দেখাশুনা করে তখন স্ত্রীকে “বাচ্চাকে তোমার একটু সময় দেয়া উচিত” বলাও কি অন্যায়?

ঘরের টুকটাক কাজ তো সবাই করে, আমার স্ত্রী বলেন কাজের ঝি হতে আমাকে বিয়ে করেননি। জব করেন আমি বাঁধা দিই নি… ও জব করে যা আয় করে নিজের কাছেই রাখে, সংসারের খরচে ওর কোন টাকা নেই নি… গায়ে হাত তোলা তো দুরের কথা উঁচু গলায় কথা বলিনি কখনও তবুও আমি খারাপ! নারী নির্যাতন কেস খেলাম! নানান হয়রানী, ভুগান্তি… অনেক টাকা গেল! সাথে মানসম্মান! ওরা আমার বাচ্চা টা কে দেখতে দেয় না। বাড়ির সামনে গেলে হুমকি দেয় মারতে আসে। ওদের অনেক ক্ষমতা! আমার বাচ্চা স্কুলে গেলে লুকিয়ে দুর থেকে দেখার চেস্টা করি! ভাই আমার বুক ফেটে যায়, কত দিন আমার মিস্টি মেয়েটিকে কোলে তুলে আদর করি না বলে অঝরে কাঁদলেন মনির সাহেব।

মনির সাহেবের সাথে আমার বাসে কথা হয়, পাশাপাশি সীটে বসে ছিলাম। মনির সাহেব নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের অপব্যবহারের শিকার। মিথ্যা মামলা আজ হারিয়েছেন সব। মনির সাহেব আমাকে বললেন সবাই বলে নারী- পুরুষ সমান অধিকার, কই আমি তো দেখি না। নারী বলে আমার স্ত্রী বেশিই সুবিধা পেল,ওর পাশে ছিল অনেকেই। আমি কি পেলাম? হারালাম সব! আমার পাশেও ছিল না কেউ! কি প্রতিকার পেলাম? দেশে অনেক মানুষ আছে যাদের অবস্থা আমার মত, তারা কি প্রতিকার পাবে? নারীরা নির্যাতিত হলে তাদের জন্য আইন আছে, তাদের পাশে মানুষ আছে। আমরা নির্যাতিত হলে আমাদের জন্য আইন নেই ,আমাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্যও কেউ নেই!

    Print       Email

You might also like...

দেনমোহর নির্ধারণের সময় করণীয়

Read More →