Loading...
You are here:  Home  >  আইনি পড়াশুনা  >  Current Article

তরুণদের প্রতি ওয়ারেন বাফেটের ১৩টি উপদেশ!

By   /  06/05/2017  /  Comments Off on তরুণদের প্রতি ওয়ারেন বাফেটের ১৩টি উপদেশ!

    Print       Email

ওয়ারেন এডওয়ার্ড বাফেট, মার্কিন ‘বিজনেস ম্যাগনেট’, উদ্যোক্তা এবং সমাজকর্মী।  বাফেটকে বিশ্বের সবচেয়ে সফল উদ্যোক্তাদের মাঝে একজন হিসেবে বিবেচনা করা হয়। বিশ্বের অন্যতম ধনী এই ব্যক্তি ২০১২ সালে টাইম ম্যাগাজিনে সর্বোচ্চ প্রভাবশালী ব্যাক্তি হিসেবে নাম লিখিয়েছেন। জীবনে সফল হতে গিয়ে বাফেট যা উপলব্ধি করেছেন, তার উপর ভিত্তি করেই তিনি তরুণ উদ্যোক্তা এবং বিনিয়োগকারীদের প্রতি কিছু বিখ্যাত উপদেশ দিয়েছেন। তার মাঝে কিছু এখানে তুলে ধরা হলো:

১। তা-ই করো যা তুমি করতে ভালবাসো।

নিজের পছন্দকে সর্বাধিক প্রাধান্য দিতে হবে। “যেই ক্ষেত্রটা লাভজনক, আমাকে সেখানেই বিনিয়োগ করতে হবে!” এমনটা ভাবার আগে “যেই ক্ষেত্রটার উপর কাজ করে আমার ভাল লাগবে, আমার জন্য সেটাই উপযুক্ত।” এই চিন্তা মাথায় আনতে হবে।

 

এমন কোন ব্যবসায় বিনিয়োগ করো না, যা তুমি বোঝো না।

প্রযুক্তিগত ব্যবসা সম্পর্কে বাফেটের তেমন ধারণা না থাকায় তিনি কখনো তাতে বিনিয়োগ করেন না, সে ব্যবসায় যতই লাভজনক হোক না কেন। তাই তিনি অন্যদেরও এ ব্যাপারে সতর্ক থাকতে বলেন। কোনো ব্যবসাতে বিনিয়োগ করার আগে তিনি বিনিয়োগকারীকে তা সম্পর্কে সম্পূর্ণ ধারণা রাখতে বলেন। অর্থাৎ, তা কীভাবে লাভ করে, ভবিষ্যতে তা থেকে কী পরিমাণ লাভ হতে পারে ইত্যাদি।

 

তোমাকে সফল হবার জন্য অনেক কম কাজ করতে হবে যদি না তুমি অনেকগুলো কাজ ভুল করো।  

একজন সফল উদ্যোক্তা হতে হলে অনেক সাবধানে কাজ করতে হবে এবং যতটা সম্ভব ভুলগুলোকে এড়িয়ে চলতে হবে। কেননা, ছোট একটা ভুলই অনেক সময় অনেক বড় ব্যর্থতার কারণ হয়ে যায়।

 

মিশতে হবে সঠিক মানুষদের সঙ্গে।

সবসময় নিজের থেকে সফল এবং দক্ষ মানুষদের সাথে মিশতে হবে। এতে করে নিজের মাঝেও সেই গুণগুলো অঙ্কুরিত হয় এবং সফল হবার অনুপ্রেরণা পাওয়া যায়।

 

অতীত থেকে শিক্ষা নিতে হবে।  

ব্যবসায়ের জগতে ভবিষ্যৎ সর্বদা অনিশ্চিত। তাই ভবিষ্যতে কী হবে তা কল্পনা করার থেকে অতীতকে বিশ্লেষণ করে, তার থেকে শিক্ষা নিয়ে সে শিক্ষাকে কাজে লাগালে ভবিষ্যৎ এমনিতেই ভাল হবে।

 

নিজের ওপর আস্থা রাখতে হবে।

শুধু বড় স্বপ্ন দেখেই গেলাম, কিন্তু “আমাকে দিয়ে হবে না” চিন্তা করে সেই স্বপ্ন পূরণের জন্য চেষ্টা করলাম না, এমনটা করলে হবে না। “আমি হতে চাই” না ভেবে ভাবতে হবে, “আমি হয়ে দেখাবো।”

 

সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে হবে।

সুযোগ সবসময় আসে না তাই সবসময় সুযোগকে ১০০% কাজে লাগাতে হবে।

 

নিজেকে উন্নত করতে হবে।   

নিজেকে উন্নত করা, নিজের দক্ষতাকে বৃদ্ধি করা হচ্ছে এক ধরণের সম্পদ যা কেউ কখনো হরণ করতে পারবে না এবং যা থেকে লাভ নিশ্চিত।

 

।  হাতে সবসময় নগদ অর্থ রাখতে হবে।

সুযোগ কখনো বলে কয়ে আসে না। অনেক সময় অর্থের অভাবে অনেক বড় সুযোগও হাতছাড়া হয়ে যায়। তাই, সবসময় পর্যাপ্ত পরিমাণ অর্থ সঞ্চিত রাখতে হবে। এতে করে, সুযোগের সদ্ব্যাবহারের পাশাপাশি অনেক ঝুঁকিও এড়িয়ে চলা যায়।

১০। ‘ঋণ’-কে যতটা সম্ভব উপেক্ষা করতে হবে।  

ব্যাক্তিজীবনে বাফেট, নিজ ব্যবসাকে দাঁড় করাতে ঋনের সাহায্য অনেক কম নিয়েছেন। অধিক ঋণের কারণে ব্যবসায়ের দায় বৃদ্ধি পায় যা পরবর্তীতে দেউলিয়াত্ব পর্যন্ত পৌঁছাতে পারে।

 

 

    Print       Email

You might also like...

কোর্ট ম্যারেজ কিভাবে করতে হয়

Read More →